১০ই জুন, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৭শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২০শে জিলকদ, ১৪৪৪ হিজরি

ঘটমান সংবাদ এ স্বাগতম।  সাথেই থাকুন।
হোমলাইফটিপসপাকা কলা সংরক্ষণ করার ঘরোয়া টিপস

পাকা কলা সংরক্ষণ করার ঘরোয়া টিপস

কলা অত্যন্ত পুষ্টিকর একটি ফল এবং ক্যালরির একটি ভালো উৎস।। এর অনেক উপকারীতা রয়েছে। পাকা কলা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করে। এতে ফাইবার থাকে যা পেট পরিষ্কার করতে সাহায্য করে। আবার পেট খারাপের সমস্যায় কাঁচকলা খেলে উপকার পাওয়া যায়। পাকা কলা পটাশিয়াম, মিনারেল, ভিটামিন সি-তে পরিপূর্ণ থাকে।

কিন্তু পাকা কলা কিনে বাড়িতে নিয়ে আসার একদিনের মধ্যেই তা আরও পাকতে শুরু করে। ইথিলিন নামক একটি বায়বীয় হরমোনের কারনে দ্রুত পেকে যায় কলা এবং দ্রুত পচতে শুরু করে। তাই পাকা কলা দু-তিনদিনের বেশি ঘরে রেখে খাওয়া যায়না। তাহলে চলুন জেনে নেই পাকা কলা সংরক্ষণ করার টিপস-

পাকা কলা সংরক্ষণ করার কয়েকটি ঘরোয়া টিপসঃ

১.কলার কান্দা ঝুলিয়ে রাখলে কলা দ্রুত পাকেনা। বোঁটা দ্বারা কলা কাঁদিতে লেগে থাকে, সেই অংশ থেকে নির্গত হয় ইথিলিন গ্যাস। কলা যদি সমতল স্থানে রেখে দেওয়া হয় তাহলে এই হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায়। ফলে দ্রুত কলা পেকে যায়। কিন্তু কলা ঝুলিয়ে রাখলে কম পরিমাণে ইথিলিন গ্যাস নির্গত হয়, এই কারণে কলাও দেরিতে পাকতে শুরু করে। এছাড়া ঝুলিয়ে রাখলে বায়ু চলাচলের কারণে গ্যাস কিছুটা উড়ে যায়।

২. ২য় পদ্ধতিটি হচ্ছে কলার বোঁটা অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল দিয়ে মুড়ে রাখবেন ফলে ইথিলিন গ্যাস কম ছড়াবে এবং কম পাকবে কলা।

৩. পাকা কলা ঘরের উষ্ণ স্থানে রাখা ভালো। পাকা কলা ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন। কখনও একসঙ্গে পাকা কলা রাখবেন না। রাখলেও কলার খোসা ছাড়িয়ে বায়ুরোধী ব্যাগে ভরে নরমাল অথবা ডিপ ফ্রিজেও রাখতে পারেন । ফ্রোজেন কলা ৩০ দিন পর্যন্ত ভালো থাকে।

আরও পড়ুন: সারাজীবন সুস্থ থাকার কয়েকটি টিপস

কন্যা সন্তানের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে যা করবেন

ইসলামে যাকাত ফরজ যেসব সম্পদে

Print Friendly, PDF & Email

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

Recent Comments