৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ঘটমান সংবাদ এ স্বাগতম।  সাথেই থাকুন।
হোমজাতীয়এবার ব্রয়লারের ডাবল সেঞ্চুরি

এবার ব্রয়লারের ডাবল সেঞ্চুরি

নিত্যপণ্যের মূল্যের ঊর্ধ্বগতির বাজারে এবার ব্রয়লারের দামে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকালো। জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব পড়তে শুরু করেছে নিত্যপণ্যের বাজারে। নিত্যপণ্যের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধিতে দিশেহারা মানুষ।

লাফিয়ে বাড়ছে ব্রয়লার মুরগির দাম। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে ব্রয়লারের কেজি প্রতি ৪০ টাকা বেড়ে ২০০ টাকা হয়েছে।

অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গেছে ফার্মের মুরগির ডিমের দাম। প্রথমবারের মতো ফার্মের মুরগির এক ডজন ডিমের দাম রেকর্ড মূল্যে ১৪৫-১৫০ টাকায় উঠেছে। ফার্মের মুরগির ডিমের পাশাপাশি এবার ব্রয়লারের দামও বেড়ে ডাবল সেঞ্চুরি করে এখন ২০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

১২ আগস্ট (শুক্রবার) রাজধানীর বিভিন্ন কাঁচা বাজারে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয়েছে ২০০ টাকা কেজিতে। তবে কোনো কোনো ব্যবসায়ী ১৯০-১৯৫ টাকা কেজিতেও বিক্রি করছেন। যেখানে গত সপ্তাহে  মুরগির কেজি ছিল ১৬০ থেকে ১৬৫ টাকা, সেখানে এক সপ্তাহের ব্যবধানে কেজি প্রতি ৪০ টাকা বাড়াকে অস্বাভাবিক মনে করছেন ক্রেতারা।

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় পরিবহন খরচও বেড়েছে এবংপাইকারি দাম বৃদ্ধির কারণে ব্রয়লার মুরগির দাম বাড়াতে বাধ্য হচ্ছে ব্যবসায়ীরা। ব্রয়লারের দাম আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এদিকে, ব্রয়লারের পাশাপাশি দাম বেড়েছে পাকিস্তানি কক বা সোনালি মুরগির। এ জাতের মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০০ থেকে ৩৩০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ২৮০ থেকে ৩০০ টাকা।

মুরগির দামের বিষয়ে ব্যবসায়ীদের ভাষ্য, দাম বাড়ার মূল কারণ মুরগির খাদ্যের দাম বাড়তি। পাশাপাশি খামারিদের উৎপাদন ব্যয় ও পরিবহন খরচও বেড়েছে। এভাবে চলতে থাকলে কিছুদিনের মধ্যেই ব্রয়লার মুরগির দাম ২৫০-৩০০ টাকায় গিয়ে ঠেকতে পারে।

আরও পড়ুন: জনসন অ্যান্ড জনসন এর বেবি পাউডারে ক্যান্সার, উৎপাদন ও বিক্রি বন্ধ

Print Friendly, PDF & Email

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

Recent Comments

Bengali BN English EN