৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৩ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ঘটমান সংবাদ এ স্বাগতম।  সাথেই থাকুন।
হোমবিদেশশপথ নিলেন ভারতের প্রথম নারী আদিবাসী প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু

শপথ নিলেন ভারতের প্রথম নারী আদিবাসী প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু

শপথ নিলেন ভারতের প্রথম নারী আদিবাসী প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু। সোমবার ভারতের ১৫তম প্রসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন তিনি। প্রধান বিচারপতি এনভি রমনা তাকে শপথবাক্য পাঠ করান। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।
শপথ নেওয়ার পর দ্রৌপদী মুর্মু বলেন, ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ তম বছরে এসে প্রেসিডেন্ট হিসেবে সেবা করার সুযোগ পেয়ে আমি গর্বিত। আমি ছোট্ট একটি গ্রাম থেকে উঠে এসেছি, যে গ্রামে প্রাথমিক শিক্ষা পাওয়াও কঠিন।
শপথ নেওয়ার আগে, দিনের শুরুতে দ্রৌপদী মুর্মু রাজঘাটে মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতিসৌধ পরিদর্শন করেন এবং ভারতের জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
সেইসঙ্গে তিনি বিদায়ী প্রেসিডেন্ট রাম নাথ কোবিন্দ এবং ফার্স্ট লেডি সবিতা কোবিন্দের সঙ্গে দেখা করেন। এরপর নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ও বিদায়ী প্রেসিডেন্ট আনুষ্ঠানিক শোভাযাত্রায় সংসদে পৌঁছান।
শপথ নিলেন ভারতের প্রথম নারী আদিবাসী প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু। শপথ গ্রহণের সময় উপস্থিত ছিলেন ভাইস প্রেসিডেন্ট ও রাজ্যসভার চেয়ারম্যান এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা, মন্ত্রী পরিষদের সদস্যরা, রাজ্যপাল, মুখ্যমন্ত্রী, কূটনৈতিক মিশনের প্রধান, সংসদ সদস্য এবং প্রধান বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তারা।
নতুন প্রেসিডেন্টের সম্মানে রাম নাথ কোবিন্দ প্রেসিডেন্ট ভবনে নৈশভোজের আয়োজন করেছেন। সেখানে উপস্থিত থাকবেন ভাইস প্রেসিডেন্ট নাইডু, প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পরিষদের সদস্যরা।
দ্রৌপদী মুর্মু ১৯৫৮ সালের ২০ জুন ওড়িশার ময়ুরভঞ্জ জেলার বাইদাপোসি গ্রামে বিরাঞ্চি নারায়ণ টুডুর কাছে একটি সাঁওতালি উপজাতি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা এবং দাদা উভয়েই পঞ্চায়েতি রাজ ব্যবস্থার অধীনে গ্রামের প্রধান ছিলেন।
রাজ্য রাজনীতিতে আসার আগে মুর্মু একজন স্কুল শিক্ষক ছিলেন। তিনি শ্রী অরবিন্দ ইন্টিগ্রাল এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ, রায়রঙ্গপুর এর একজন সহকারী অধ্যাপক এবং ওড়িশা সরকারের সেচ বিভাগে জুনিয়র সহকারী হিসেবে কাজ করেছেন।
মুর্মু ১৯৯৭ সালে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেন এবং রায়রঙ্গপুর নগর পঞ্চায়েতের কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। তিনি ভারতীয় জনতা পার্টি তফসিলি উপজাতি মোর্চার জাতীয় সহ-সভাপতি হিসেবেও কাজ করেছেন।
প্রথম কোনও আদিবাসী নারী রাইসিনা হিলের মসনদে যাওয়ায় দেশজুড়ে এই সম্প্রদায়ের সদস্যরা উল্লাস-উদযাপন শুরু করেছেন। দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতর থেকে রোড শোর মাধ্যমে মুর্মুর বিজয় উদযাপন শুরু হয়েছে। এছাড়াও বিজেপির অন্যান্য সব রাজ্য শাখাও বিজয় মিছিলের পরিকল্পনা করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

Recent Comments