২৬শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১লা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ঘটমান সংবাদ এ স্বাগতম।  সাথেই থাকুন।
হোমলাইফটিপসসারাজীবন সুস্থ থাকার কয়েকটি টিপস

সারাজীবন সুস্থ থাকার কয়েকটি টিপস

সারাজীবন সুস্থ থাকার জন্য কয়েকটি অভ্যাস আয়ত্ত করুন যেগুলো মেনে চললে এই পৃথিবীতে বেঁচে থাকাটা আপনার জন্য অনেক সহজ হবে। আপনাদের মনে প্রশ্ন জাগতে পারে প্রাচীনকালে মানুষ নিয়ম কানুন মানতো না তাহলে তারা কিভাবে এতদিন বেঁচে থাকত,?

আমাদের জীবন যাপন সম্পূর্ণ ওদের থেকে আলাদা। আগের দিনের মানুষরা বেশি পরিশ্রম করত এবং ন্যাচারাল খাবার খেতো। কিন্তু বর্তমান যুগে আমরা যে খাবারগুলো বাজার থেকে কিনে খাই তার বেশির ভাগই আমাদের শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

এই বিষাক্ত পৃথিবীতে বেঁচে থাকার জন্য আমাদের কিছু অভ্যাস আয়ত্ত করতে হবে যা আমাদের সারাজীবন সুস্থ থাকার জন্য সহায়তা করবে। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই টিপসগুলো-

১। সকালে ঘুম থেকে উঠার পর প্রতিদিন চার গ্লাস পানি খাওয়ার অভ্যাস করুন। এতে সারাদিন শরীর ও মন দুটিই ভালো থাকে। ঘুম থেকে উঠার পর চার গ্লাস পানি খেলে প্রায় ৩৬ ধরনের রোগ হয়না।

২। এরপর বাথরুমে যান। বাথরুম থেকে বের হয়ে ফ্রেশ হয়ে আরো এক গ্লাস পানি পান করুন। তারপর দুধ ছাড়া এক কাপ চা পান করুন। ওজন বেশি হলে চিনি খাওয়া ছেড়ে দিন। কখনো অতিরিক্ত গরম চা পান করবেন না। দুধ-চিনি হীন হালকা গরম চা হচ্ছে ২৫০০ বছর আগের একটি চায়নিজ হারবাল মেডিসিন।

৩। সারাদিনে ৮-১২ গ্লাস বাড়তি পানি খান।

৪। ভিটামিন সি দেহের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন কমবেশী ভিটাসিন সি যুক্ত ফল খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। দিনে ১০০০ মিলিগ্রাম ভিটাসিন সি খেলে মানুষ চির তরুন থাকে। ভিটামিন সি ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে। আমলকি, লেবু কমলা, পেয়ারাসহ বিভিন্ন ধরনের টকজাতীয় ফলে ভিয়ামিন সি রয়েছে।

৫। ধূমপানসহ সকল নেশা জাতীয় জিনিসের অভ্যাস ত্যাগ করুন।

৬। গরু, মহিষ, খাসি, ভেড়া ইত্যাদির মাংস খাওয়া ছেড়ে দেওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। ফার্মের মুরগীও খাওয়া যাবেনা। শুধু দেশী মুরগীর মাংস খাওয়া যেতে পারে।

৭। প্রচুর আধা সেদ্ধ শাকসবজি, তরিতরকারি এবং অল্প পরিমানে ভাত রুটি খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

৮। অতিরিক্ত তেলে ভাজা খাবার, চর্বি, ঘি , মাখন খাওয়া পরিহার করতে হবে। অতিরিক্ত মশলা খাওয়ার অভ্যাস পরিহার করতে হবে।

৯। প্রতিদিন সালাদ খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে। সালাদ হিসেবে কাঁচা লেটুস পাতা, পুদিনা পাতা , টমেটো ইত্যাদি খাওয়া যেতে পারে।

১০। ডাক্তারি কোন বিধি-নিষেধ না থাকলে প্রতিদিন খালি পেটে এক চামচ মধু খাওয়ার অভ্যাস করুন।

১১। সামুদ্রিক মাছ খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। কারণ এটা মহৌষধ। মাছের অতিরিক্ত কাটা খাওয়া উচিত নয়। এতে পাকস্থলিতে পাথর হতে পারে।

১২ প্রতিদিন অল্প  করে টক দই খাওয়ার অভ্যাস করুন।

আরও পড়ুন: সিলিন্ডারে কতটুকু গ্যাস রয়েছে, তা জানার উপায়

Print Friendly, PDF & Email

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

Recent Comments