২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ২৭শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি

ঘটমান সংবাদ এ স্বাগতম।  সাথেই থাকুন।
হোমজাতীয়সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ হচ্ছে

সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ হচ্ছে

দেশের উত্তর পূর্বাঞ্চলের জেলা সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ হচ্ছে। কয়েক লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

এ অবস্থায় পানিবন্দি মানুষদের উদ্ধার করতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী রেসকিউ বোট নিয়ে সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছেন সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমান।

তিনি বলেন, ‘বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ হচ্ছে। এ অবস্থায় পানিবন্দি মানুষদের উদ্ধার করার জন্য সেনাবাহিনীর সহযোগিতা চেয়েছি। তারা রেসকিউ বোট নিয়ে দ্রুত উদ্ধার অভিযান শুরু করবে।

বন্যায় সিলেটের গোয়াইনঘাট, কোম্পানীগঞ্জ, কানাইঘাট, জৈন্তাপুর, সিলেট সদর উপজেলা এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকার বড় অংশ প্লাবিত হয়েছে।

সুনামগঞ্জের ছাতক, দোয়ারাবাজার, বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর, মধ্যনগর, সদর উপজেলা এবং সুনামগঞ্জ শহরের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

এদিকে, বন্যা আক্রান্ত সবকয়টি এলাকায় গতকাল রাত থেকেই বিদ্যুৎ নেই। বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বিভিন্ন উপকেন্দ্র প্লাবিত হওয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে।

সিলেট উপজেলার প্রায় শতভাগ মানুষ পানিবন্দি। ফলে আশ্রয়ের সন্ধানে রযেছেন মানুষজন। সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতিতে কেউ ত্রাণ চায় না, প্রাণে বাঁচতে চায়।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্যমতে, ভারী বর্ষণ ও উজানের পাহাড়ি ঢলের কারণে সিলেটের সব নদ নদীর পানি বেড়েই চলেছে। নদীগুলোর পানি বিভিন্ন পয়েন্টে বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহমান রয়েছে।শুক্রবার বিকেল ৩টার হিসাব অনুযায়ী, সুরমার পানি কানাইঘাটে ১২৮ সেন্টিমিটার, সিলেটে সুরমার পানি ৭৭ সেন্টিমিটার, সারি নদীতে ৬৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়া কুশিয়ারার বিভিন্ন পয়েন্টেও নদীর পানি বিপৎসীমার ছুঁই ছুঁই করছে।

 আরও পড়ুন:
সুদানের দারফুরে যুদ্ধে মৃতের সংখ্যা ১২৫ ছাড়িয়েছে
বুরকিনা ফাসোতে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫০ জন
টোগোর উত্তরাঞ্চলে জরুরি অবস্থা জারি
একাই অনুশীলন করলেন সাকিব আল হাসান
খাদ্যপণ্য রপ্তানি নিষেধাজ্ঞা আরোপ না করার অনুরোধ বাংলাদেশের
নির্বাচনকালীন সরকার ইসিকে সহযোগিতা করবে বলে আশা সিইসি’র
জায়েদ খান আম্মুকে বিরক্ত করেন, বললেন মৌসুমীর ছেলে ফারদিন
সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা চালু হচ্ছে এ বছরই
কৃষিখাতের আধুনিকায়নে এফএও বাংলাদেশের সাথে কাজ করতে আগ্রহী
নবম শ্রেণিতে রেজিস্ট্রেশনের বয়স নির্ধারণ করে দিল শিক্ষা বোর্ড

জনশুমারি ও গৃহগণনা কার্যক্রম শুরু হচ্ছে আগামী ১৫ জুন
ভোজ্যতেলের চাহিদার ৪০ ভাগ স্থানীয়ভাবে উৎপাদন করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

Print Friendly, PDF & Email

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

Recent Comments

Bengali BN English EN