১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৫ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ঘটমান সংবাদ এ স্বাগতম।  সাথেই থাকুন।
হোমলাইফটিপসকাঁঠালের বিচি সংরক্ষণ পদ্ধতি

কাঁঠালের বিচি সংরক্ষণ পদ্ধতি

কাঁঠালের বিচি সংরক্ষণ করার পদ্ধতি অত্যন্ত সহজ । অথচ এই বিষয়টি আমাদের অনেকের কাছে অজানা

কাঁঠালের বিচি দিয়ে তৈরি করা ভর্তা বা তরকারি খেতে বেশ সুস্বাদু হয়। কাঁঠালের বিচি দিয়ে মাংস রান্না থেকে শুরু করে ভর্তা, অন্যান্য তরকারি কিংবা এমনিতেও ভেজে খাওয়া যায়। তবে কাঁঠালের বিচির লালচে আবরণ পরিষ্কার করতে অনেক সময়ের প্রয়োজন হয়। একারনে অনেকেই  কাঁঠালের বিচি খেতে চান না। আসুন প্রথমেই জেনে নেই কিভাবে খুব সহজেই কাঁঠালের বিচির গায়ে থাকা লাল চামড়া মিনিটেই পরিষ্কার করতে পারবেন। আর সংরক্ষণও করতে পারবেন। দেরি না করে চলুন জেনে নেই কাঁঠালের বিচি পরিষ্কারের কয়েকটি সহজ কৌশল-

  •  প্রথমে কাঁঠালের বিচি থেকে খোসা ছাড়িয়ে নিন। এবার একটি ছুরির সাহায্যে কাঁঠালের বিচি থেকে লাল অংশটুকু আলাদা করে ফেলুন। ঠিক যেভাবে আলু ছিলে সেভাবেই এই কাজটি করে ফেলুন।
  • আরেকটি সহজ পদ্ধতি হচ্ছে ঘষে পরিষ্কার করা ।
  • কাঁঠালের বিচি পরিষ্কারের এটি হচ্ছে সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি। এ পদ্ধতিতে প্রথমে কাঁঠালের বিচি থেকে খোসা ছাড়িয়ে একটি হাড়িতে পরিমাণ মতো পানি দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন।  এমনভাবে পানি দেবেন যেন  বিচিগুলো পানিতে ডুবে থাকে। বলক আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। পানিতে একটা বলক উঠার পর তা চুলা থেকে নামিয়ে ফেলুন। এক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে বিচিগুলো যেন বেশি সিদ্ধ না হয়। কারন বেশি সিদ্ধ হয়ে গেলে বিচি পরিষ্কার করা যাবেনা। তারপর বিচিগুলো ছাঁকনি দ্বারা ছেঁকে নিন। তারপর বিচিগুলো হাত দিয়ে হালকা ডলা দিবেন। দেখবেন লাল চামড়া সহজে উঠে যাবে। এটি সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি। এছাড়া এ পদ্ধতিতে  পরিষ্কার করলে সময় ও শ্রম দুটোই কম লাগে।

সংরক্ষণ পদ্ধতিঃ কাঁঠালের বিচি বিভিন্নভাবে সংরক্ষণ করা যায়। এক্ষেত্রে আপনি কাঁঠালের বিচি পরিষ্কার করে অথবা পরিষ্কার না করেও সংরক্ষণ করতে পারেন। আসুন কাঁঠালের বিচি সংরক্ষণের তিনটি পদ্ধতি জেনে নেই-

  • এক্ষেত্রে প্রথমে কাঁঠালের বিচি ফ্যানের বাতাসে অথবা রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। তারপর নরম,ফাটা বিচিগুলো আলাদা করে ফেলতে হবে। ভালো বিচিগুলো একটি শুকনো পলিথিনে রেখে পলিথিনের মুখ বেঁধে ফ্রিজের নরমাল অবস্থানে রাখতে পারেন। এভাবে এক বছর সংরক্ষণ করা যায়।
  • কাঁঠালের বিচিগুলো একটি শুকনো পলিথিনে রেখে পলিথিনের মুখ এমনভাবে বাঁধতে হবে যাতে পলিথিনের ভিতরে কোন বাতাস না থাকে । এরপর আরেকটি পলিথিনের ভিতরে ভরে  পলিথিনের মুখ এমনভাবে বাঁধতে হবে যেন পলিথিনের ভিতরে কোনভাবে বাতাস ঢুকতে না পারে। তারপর বাইরে যেকোন তাপমাত্রায় রেখে দিন। এভাবে দীর্ঘদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়।
  • এই পদ্ধতিতে প্রথমে কাঁঠালের বিচির সাদা খোসা ছাড়িয়ে কাঁঠালের বিচির গায়ে থাকা লাল চামড়া পরিষ্কার করে নিন। এরপর চাকু অথবা বটি দ্বারা বিচিগুলো কেটে নিন। একটি হাড়িতে পরিমাণ মতো পানি দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। পানি গরম হলে কাঁটা বিচিগুলো গরম পানিতে দিয়ে দিন। তবে ৩০ সেকেন্ডের বেশি সময় রাখা উচিত না। এরপর পানি ঝরিয়ে পুরোপুরি ঠান্ডা করে নিন। ঠান্ডা হয়ে গেলে যে কোন বক্সে অথবা পলিথিনে ভরে ডিপ ফ্রিজে সংরক্ষণ করতে পারেন এক বছর।

আরও পড়ুন: কাঁঠালের বিচি পরিষ্কার করার সহজ কয়েকটি কৌশল

Print Friendly, PDF & Email

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

Recent Comments