২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ১৪ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

ঘটমান সংবাদ এ স্বাগতম।  সাথেই থাকুন।
হোমখেলা২০ জেলায় ইনডোর ও ১৮৬ উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম করা হবে

২০ জেলায় ইনডোর ও ১৮৬ উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম করা হবে

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেছেন, আগামীতে ২০ জেলায় ইনডোর ও ১৮৬ উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, পূর্বে উপজেলা পর্যায়ে কোন মিনি স্টেডিয়াম ছিলো না, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ১২৬টি মিনি স্টেডিয়াম নির্মান করেছে।

মুন্সীগঞ্জ ইনডোর স্টেয়িামের উদ্বোধনকালে প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি আরো বলেন, ২০ জেলায় ইনডোর ও ১৮৬ উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের পাশাপাশি আমরা আরেকটি উদ্যোগ নিয়েছি, ১৮৬টি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের একটি প্রস্তাব একনেকে উত্থাপনের অপেক্ষায় রয়েছে। ১৬ শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে এসব মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হবে।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু খেলাধুলা ভালোবাসতেন। তাঁর পরিববারের সবাই খেলাধুলায় নেতৃত্ব দিয়েছেন। মুজিব বর্ষে ক্রীড়া ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক নানা রকম পরিকল্পনা রয়েছে।

বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে এবং ফলক উন্মোচন করে মুন্সীগঞ্জ সার্কিট হাউস সংলগ্ন নবনির্মিত ইনডোর স্টেডিয়াম উদ্বোধণ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে প্রতিমন্ত্রী একথা বলেন ।

মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির ভাষণ দেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ আসাদুল ইসলাম, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আক্তার হোসেন, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব মোঃ মাসুদ করিম, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল করিম এনডিসি, মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপার মোঃ আব্দুল মোমেন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব প্রমুখ।

আধুনিক মানের মুন্সীগঞ্জ ইনডোর স্টেডিয়ামটিতে ব্যাডমিন্টন, টেবিল টেনিসসহ সব ধরনের ইনডোর খেলার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া স্টেডিয়ামটিতে শরীরচর্চার জন্য জিম রয়েছে। ৪শ’ দর্শনার্থী একসাথে খেলা উপভোগ করতে পারবে।

প্রায় সাড়ে ৯ কোটি টাকা ব্যয়ে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের তত্ত্বাবধানে ইনডোর স্টেডিয়ামটি নির্মিত হয়।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি পরে প্রায় আড়াই কোটি টাকা ব্যয়ে সুইমিংপুল উন্নয়ন কাজ এবং প্রায় ৬ কোটি ১১ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত জেলা স্টেডিয়ামের অধিকতর উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও পরিদর্শন করেন।

২০১৮ সালের মার্চে ইনডোর স্টেডিয়ামটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। ২০২০ সালেই নির্মাণ সম্পন্ন হয়। তবে করোনার কারণে উদ্বোধনে বিলম্ব হয়।

Print Friendly, PDF & Email

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

Recent Comments