৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১১ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ঘটমান সংবাদ এ স্বাগতম।  সাথেই থাকুন।
হোমখেলাক্রিকেটঢাকা টেস্ট: ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ দল

ঢাকা টেস্ট: ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ দল

ঢাকা টেস্ট এর দ্বিতীয় দিনেই চাপে পড়ে গেল স্বাগতিক বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৪০৯ রানের জবাবে দিন শেষে ৪ উইকেটে ১০৫ রান তুলেছে বাংলাদেশ।

ফলো-অন এড়াতে আরও ১০৪ রান করতে হবে টাইগারদের। আর সব মিলিয়ে এখনো ৩০৪ রানে পিছিয়ে মোমিনুল হকের দল।

ঢাকা মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট এর প্রথম দিন শেষে ৫ উইকেটে ২২৩ রান করেছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এনক্রুমার বোনার ৭৪ ও উইকেটরক্ষক জসুয়া ডা সিলভা ২২ রানে অপরাজিত ছিলেন।

আজ দ্বিতীয় দিন নাভার্স নাইন্টিতে থামতে হয় বোনারকে। বাংলাদেশের অফ-স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজের ডেলিভারি ফ্লিক করে লেগ স্লিপে মোহাম্মদ মিঠুনকে ক্যাচ দেন বোনার।

ঢাকা টেস্টে তিনি টেস্ট ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্টে দ্বিতীয় হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ৯০ রানে আউট হন।

মিরাজের ৯৯তম টেস্ট শিকার হওয়ার আগে ২০৯ বলের ইনিংসে ৭টি চার মারেন বোনার।

বোনার-সিলভা ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ৮৮ রান যোগ করেন।

মিরাজের পরের ওভারের পঞ্চম বলে বাউন্ডারি দিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের তৃতীয় টেস্টে দ্বিতীয় হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন সিলভা।

হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নিয়ে আট নম্বরে নামা আলজারি জোসেফকে নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের রানের চাকা ঘুড়িয়েছেন সিলভা। দলের স্কোর সাড়ে তিনশও পার করেন তারা।

বোনারের মত নব্বইয়ের ঘরে পৌঁছে যান সিলভাও। বোনারের মত হতাশায় পড়তে হয় তাকে। তাইজুলের দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে বোল্ড হন সিলভা।

এই শিকারের মাধ্যমে দেশের মাটিতে শততম টেস্ট উইকেট নেন তাইজুল।

১৮৭ বলে ১০টি চারে ৯২ রান করেন সিলভা। সপ্তম উইকেটে দলের স্কোরে ১১৮ রান রাখেন সিলভা-জোসেফ।

দলীয় ৩৮৪ রানে সিলভার আউটের পর বেশিক্ষণ টিকতে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৪০৯ রানে গুটিয়ে যায় তারা।

৮২ রান করা জোসেফ ও জোমেল ওয়ারিকানকে ২ রানে আউট করেন বাংলাদেশের পেসার আবু জায়েদ।

আর শেষ ব্যাটসম্যান শ্যানন গাব্রিয়েলকে শিকার করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস থামান তাইজুল।

বল হাতে বাংলাদেশের আবু জায়েদ ৯৮ রানে ও তাইজুল ১০৮ রানে ৪টি করে উইকেট নেন। এছাড়া মিরাজ-সৌম্য সরকার ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৪০৯ রান যে, বড় চাপ ছিলো সেটি ব্যাট হাতে নেমে দেখিয়েছেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা।

প্রায় দেড় বছর পর টেস্ট খেলতে নেমে প্রথম ওভারের শেষ বলে খালি হাতে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন সৌম্য সরকার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার গাব্রিয়েলের শিকার হন তিনি।

প্রথম বলেই বাউন্ডারি মেরে রানের খাতা খুলেছিলেন তিন নম্বরে নামা নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে পরের বলে শান্তকে বিদায় দেন গাব্রিয়েল। তার বোলিং তোপে ১১ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ।

এরপর অধিনায়ক মোমিনুল হককে নিয়ে দ্রুত রান তুলে পাল্টা আক্রমন চালান ওপেনার তামিম ইকবাল।

পেসার জোসেফকে টানা তিন ওভারে তামিম চারটি ও মোমিনুল দু’টি চার মারেন। তামিম-মোমিনুল ব্যাটে চড়ে ঘুড়ে দাঁড়ানোর পথ খুঁজে পায় বাংলাদেশ

কিন্তু দুই সেট ব্যাটসম্যানকে দ্রুত তুলে নিয়ে বাংলাদেশকে আবারো চাপে ফেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৪টি চারে ২১ রান করা মোমিনুলকে আউট করে ব্রেক-থ্রু দেন কর্নওয়াল।

আর ৬টি চার ও ১টি ছক্কায় ৫২ বলে ৪৪ রান করে জোসেফের প্রথম শিকার হন তামিম।

৭১ রানে চতুর্থ উইকেট পতনের পর দিনের বাকী সময়ে ভালোভাবে শেষ করেন মুশফিকুর রহিম ও মোহাম্মদ মিঠুন।

মুশফিক ২৭ ও মিঠুন ৬ রানে অপরাজিত আছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের গাব্রিয়েল ২টি, কর্নওয়াল-জোসেফ ১টি করে উইকেট নেন।

স্কোর কার্ড


ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইনিংস (আগের দিন ২২৩/৫, ৯০ ওভার, বোনার ৭৪*, সিলভা ২২*)
ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ক শান্ত ব সৌম্য ৪৭
জন ক্যাম্পবেল এলবিডব্লু ব তাইজুল ৩৬
শায়নে মোসলে বোল্ড ব জায়েদ ৭
এনক্রুমার বোনার ক মিঠুন ব মিরাজ ৯০
কাইল মায়ার্স ক সৌম্য ব জায়েদ ৫
জার্মেই ব্ল্যাকউড ক এন্ড ব তাইজুল ২৮
জসুয়া ডা সিলভা বোল্ড ব তাইজুল ৯২
আলজারি জোসেফ ক লিটন ব আবু জায়েদ ৮২
রাকিম কর্নওয়াল অপরাজিত ৪
জোমেল ওয়ারিকান ক লিটন ব আবু জায়েদ ২
শ্যানন গাব্রিয়েল ক মুশফিকুর ব তাইজুল ৮
অতিরিক্ত (বা-৪, লে বা-২, নো-২) ৮
মোট (অলআউট, ১৪২.২ ওভার) ৪০৯
উইকেট পতন : ১/৬৬ (ক্যাম্পবেল), ২/৮৭ (মোসলে), ৩/১০৪ (ব্র্যাথওয়েট), ৪/১১৬ (মায়ার্স), ৫/১৭৮ (ব্ল্যাকউড), ৬/২৬৬ (বোনার), ৭/৩৮৪ (সিলভা), ৮/৩৯৬ (জোসেফ), ৯/৩৯৮ (ওয়ারিকান), ১০/৪০৯ (গাব্রিয়েল)।

বাংলাদেশ বোলিং
জায়েদ : ২৮-৬-৯৮-৪,
মিরাজ : ৩৩-৯-৭৫-১,
নাইম : ২৪-৩-৭৪-০,
তাইজুল : ৪৬.২-৮-১০৮-৪ (নো-২),
সৌম্য : ১১-১-৪৮-১।

বাংলাদেশ ইনিংস
তামিম ইকবাল ক মোসলে ব জোসেফ ৪৪
সৌম্য সরকার ক মায়ার্স ব গাব্রিয়েল ০
নাজমুল হোসেন শান্ত ক বোনার ব গাব্রিয়েল ৪
মোমিনুল হক ক সিলভা ব কর্নওয়াল ২১
মুশফিকুর রহিম অপরাজিত ২৭
মোহাম্মদ মিঠুন অপরাজিত ৬
অতিরিক্ত (নো-৩) ৩
মোট (৪ উইকেট, ৩৬ ওভার) ১০৫
উইকেট পতন : ১/১ (সৌম্য), ২/১১ (শান্ত), ৩/৬৯ (মোমিনুল), ৪/৭১ (তামিম)।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোলিং
শ্যানন গাব্রিয়েল : ৮-২-৩১-২ (নো-২),
রাকিম কর্নওয়াল : ১১-৪-১৮-১,
আলজারি জোসেফ : ৮-১-৩৪-১,
কাইল মায়ার্স : ৫-১-১২-০,
জোমেল ওয়ারিকান : ৪-১-১০-০ (নো-১)।

Print Friendly, PDF & Email

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

Recent Comments